কোমড় ও হাঁটু ব্যথা কেন হয়? কারণ ও প্রতিকার

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা কেন হয়? কারণ ও প্রতিকার

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা করলে আমরা ঠিকমত চলাফেরা করতে পারিনা। কোমড় ও হাঁটু ব্যথা থেকে পরিত্রান পাওয়ার জন্য আমাদের সকলেরই শিউলিফুল গাছের উপকারিতা সর্ম্পকে জানা উচিৎ। স্বাস্থ্যই সকল সুখের মূল কথাটি যেমন সত্যি, ঠিক তেমনি এই সুখের মূলে শিউলিফুল গাছের উপকারিতা এবং দৈনন্দিন জীবনে এর ব্যবহার নিয়ে Top Chakri.com আপনাদের সামনে হাজির হয়েছে।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা কেন হয়? মুক্তির উপায়

সম্মানিত জগৎবাসি, আজকে আমি আপনাদের সামনে কোমড় ও হাঁটু ব্যথা থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য যে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করব তা হচ্ছে শিউলিফুল গাছের উপকারিতা এবং দৈনন্দিন জীবনে এর ব্যবহার সম্পর্কে।

নাম করন: এই শিউলিফুল গাছ বিভিন্ন নামে পরিচিত যেমন- বাংলায় পারিজাত বা শেফালিকা বলা হয়, হিন্দিতে হার সিঙ্গার বলা হয়। হার সিঙ্গার বলার কারন, এই গাছের ফুলের মালা মেয়েদের গলার সৌন্দর্য বৃদ্ধি করে। ইংরেজিতে নাইট জেসমিন বলা হয়। নাইট জেসমিন বলার কারন হল এই ফুলটি রাতের বেলায় ফুটে এবং দিনের বেলায় ঝরে যায়।

যেখানে পাওয়া যাবে: বাংলার প্রায় প্রতিটি বাড়িতে এই গাছ দেখতে পাওয়া যায়। আর যদি বাড়িতে না থাকে তাহলে একটু আসে-পাশে খুজলে এই গাছটি পাওয়া যাবে। আর্য়ুবেদিক শাস্ত্রে কোমড় ও হাঁটু ব্যথা চিকিৎসায় এই গাছের বিভিন্ন উপকারিতার কথা বলা হয়েছে। যা জানলে আপনি অবশ্যই অবাক হয়ে যাবেন। যারা বহুদিন ধরে ছায়াটিকা (SCIATICA) বা গ্রিডরেসি (কোমড় ও হাঁটু ব্যথা) রোগে ভূগছেন তাদের জন্য অত্যান্ত উপকারি হচ্ছে এই ঔষধি গাছ।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা রোগের লক্ষন:

রোগের নাম: যদি আপনারা ছায়াটিকা বা গ্রিডরেসি (কোমড় ও হাঁটু ব্যথা) রোগ সম্পর্কে না জানেন সে সম্পর্কে বলছি , এটি এমন একটি রোগ যার ফলে আক্রান্ত ব্যাক্তির কোমড় ও হাঁটুতে অত্যান্ত ব্যাথা অনুভব হবে। এমনকি কোমড় থেকে পায়ের গিড়া পযর্ন্ত প্রচন্ড ব্যথা করবে। ফলে আক্রান্ত ব্যাক্তি ঠিকমত নরাচরাও করতে পারবেনা।

এই ব্যাথার প্রধান করন হচ্ছে আমাদের দেহের ছায়টিক নার্ভ। ছায়টিক নার্ভে কোন কিছুর চাপ পরলে এই ব্যথার উৎপত্তি হয়। যারা বহুদিন ধরে এই ছায়াটিকায় (কোমড় ও হাঁটু ব্যথা) ভুগছেন তাদের জন্য এই ফুলের গাছটি অত্যান্ত উপকারি।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা যেভাবে ব্যবহার করবেন:

পথমে পাঁচ থেকে ছয়টি শিউলি ফুলের পাতা নেই, তারপর দুই গ্লাস পানিতে মিশিয়ে এটি ভাল করে গরম পানিতে সিদ্ধ করি। এমন ভাবে গরম বা সিদ্ধ করতে হবে যেন এই পানি, এক গ্লাস পানিতে পরিনত হয়। এখন এই পানি ভাল করে ছেকে প্রতিদিন এক গ্লাস মাত্র একমাস নিয়মিত সকাল এবং সন্ধ্যায় খালি পেটে পান করুন । এভাবে কিছু দিনের মধ্যেই দেখা যাবে আপনি অনেক উপকার পাবেন এবং আপনার ছায়াটিকা রোগ কমতে শুরু করবে। যার ফলে এক সময় দেখা যাবে আপনার শরীরে কোমড় ও হাঁটু ব্যথা ছাড়াও আর কোন প্রকার বাত বা ব্যথা একেবারেই নেই।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা মুক্তিতে শিউলিফুল এক মহাওষুধ

সন্ধিবাত এবং আমবাতের ক্ষেত্রে অর্থ্যাৎ আর্থ্রাইটিস বা অষ্টিওআর্থ্রাইটিস (Osteoarthritis) এবং রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস (rheumatoid arthritis) এর ক্ষেত্রেও এই গাছের উপকারিতার কথা বলে শেষ করা যাবেনা। যারা বহুদিন ধরে এই আর্থ্রাইটিস রোগে ভুগছেন তাদের ক্ষেত্রে পাচ থেকে ছয়টি পাতা এবং সামান্য পরিমান গাছের ছাল, ছালটি এমনভাবে নিবেন ( যাতে গাছের কোন ক্ষতি না হয় ) এবং তার সাথে দুই থেকে তিনটি ফুল এক সাথে মিশেয়ে ভালকরে থেতলিয়ে বা পিশিয়ে নিবেন। অতপর ২০০ গ্রাম পানিতে এক সাথে মিশিয়ে ভাল করে গরম বা সিদ্ধ করবেন। এমনভাবে সিদ্ধ করতে হবে যেন এই পানি যতক্ষন ১০০ গ্রাম পানিতে পরিনত না হবে।

এখন এই পানি ঠান্ডা করে ভাল করে ছেকে নিয়মিত সকাল এবং সন্ধায় পান করুন। এই বাথের ব্যাথা যতই পুরানো হোক না কেন সেটি আস্তে আস্তে ভাল হতে শুরু করবে নিচ্ছিৎ। এভাবে মাত্র তিন মাস সেবন করলে এই বাতের ব্যাথ্যা আর থাকবেনা। আপনি পুরোপুরি সুস্থ হয়ে যাবেন ইনশাল্লাহ।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথা চিকিৎসায় শিউলিফুলের উপকারিতা:

যাদের এই সমস্যাগুলি আছে: ক্রিমির সমস্যার ক্ষেত্রেও এই গাছ অত্যান্ত উপকারি একটি ঔষধি। যারা বহুদিন ধরে ক্রিমির সমস্যায় ভুগছেন অনেক ওষধ খেয়েও কাজ হচ্ছেনা, তাদের জন্য এই গাছ অত্যান্ত উপকারি। প্রতিদিন এই পাতার রস দুই চামুচ করে সকালে খালিপেটে খেলে আপনার ক্রিমির সমস্যা আর থাকবেনা। এভাবে অত্যন্ত একটি মাস খাবেন।

যাদের বহুদিন থেকে জ্বর, অর্থাৎ জ্বর ভাল হয় আবার আসে তাদের ক্ষেত্রেও এই গাছের পাতার কাধ বা কাড়া খুবই উপকারি। এই পাতা দিয়ে কাড়া বা কাধ বানিয়ে কিছুদিন খালি পেটে খেলে, এই রোগ থেকে চিরকালের জন্য মুক্তি পাবেন। এছাড়াও যে সমস্ত মা-বোনের মাষিকের সময় পেটে প্রচন্ড ব্যথা করে তারা যদি কিছুদিন এই নিয়মে সেবন করেন তাদের মাষিকের সময় উক্ত সমস্যা আর থকবেনা।

এতক্ষন যে রোগ গুলোর কথা বলা হল সেগুলি তো অবশ্যই ভাল হবে। এগুলি ছাড়াও যাদের কোষ্ঠ- কাঠিন্য রয়েছে তারা উক্ত নিয়মে সেবন করলে এই রোগ আর থাকবেনা। তাহলে তো আপনারা অবশ্যই বুঝতে পারছেন এই গাছ যেমন একটি বাড়ির শোভা বৃদ্ধি করে, ঠিক তেমনি বিভিন্ন রকম রোগের সুচিকিৎসাতেও সাহায্য করে।

কোমড় ও হাঁটু ব্যথায় শিউলিফুলের গুনাবলী:

আপনারা কি (কোমড় ও হাঁটু ব্যথা) এই গাছের এত বেশি গুনাগুনের কথা আগে জানতেন ? যদি কোন গুনাগুনের কথা আপনারা জানেন তাহলে কমেন্ট বক্সে অবশ্যই কমেন্ট করে জানাবেন। আপনারা অনেকে এই গাছের এত গুনাগুন এবং এর ব্যবহার জানেন না বলেই দৈনন্দিন জীবনে এই গাছের ব্যবহার করতে পারেন না।

তাহলে চলুন আমরা আজ থেকে এই গাছের ব্যবহার শুরু করি। আমার দেওয়া এই তথ্যগুলির মধ্যে যদি কোন প্রশ্ন বা সন্দেহ থাকে তাহলে কমেন্ট বক্সে অবশ্যই কমেন্ট করে জনাবেন। আমি চেষ্টা করব আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার।

প্রিয় এলাকাবাসি আশা করি আমার দেওয়া এই ভিডিওটি আপনাদের ভাল লাগবে। ভাল লাগলে ভিডিওটি Like এবং Share করে অন্যদের কাছে পৌছে দিন। যাতে অন্যেরাও আপনাদের মত উপকৃত হয়।
আপনারা সকলেই ভাল থাকুন, সুস্থ থাকুন এই কামনা করে আজকের মতে এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ

শিউলিফুল গাছের উপকারিতা এবং দৈনন্দিন জীবনে এর ব্যবহার ছাড়াও সকল সরকারি-বেসরকারি এবং এনজিও চাকরির নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ২০২১ আমাদের ওয়েবসাইট Top Chakri.com এ প্রকাশ করা হয়। তাই নতুন সকল চাকরির আপডেট পেতে আমাদের ওয়েবসাইটটি নিয়মিত ভিজিট করুন এবং Facebook পেজটিতে Like দিন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here